বিভাগ: সাক্ষাৎকার

মহাশ্বেতা দেবীর সঙ্গে আলাপ

বাংলা সাহিত্য-অঙ্গনে বহুমাত্রিকতা ও দেশজ আখ্যানের অনুসন্ধানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার জন্য মহাশ্বেতা দেবী স্বতন্ত্র ঘরানার লেখক হয়ে উঠেছেন। শুধুমাত্র উপমহাদেশে নয়, বিশ্বের নানা দেশে তাঁর সাহিত্যকর্ম পঠিত ও আলোচিত হচ্ছে। নোবেল পুরস্কার লাভের সম্ভাব্য তালিকায় নাম ওঠার গুঞ্জনও বাতাসে ভাসে। মহাশ্বেতা দেবী আন্তর্জাতিক খ্যাতিমান লেখক এবং সংস্কৃতি ও মানবাধিকার কর্মী। তিনি ইতিহাস ও রাজনীতির ভূমি থেকে যে-সাহিত্য রচনা শুরু করেন, তা কেবল শোষিতের আখ্যান নয় বরং স্বদেশীয় প্রতিবাদী চরিত্রের সন্নিবেশ বলা যায়। প্রতিবাদী মধ্যবিত্ত প্রান্তিক ও পাহাড়ি-বনাঞ্চলের জীবন ও যুদ্ধ, নৃগোষ্ঠীর স্বাদেশিক বীরগাথা আখ্যান রচনার পারদর্শিতা তাঁকে বিশিষ্ট করেছে। (সম্পূর্ণ…)

‘আমি আমার পুকুরে ইচ্ছেমতো সাঁতার কাটি’ -হাসান আজিজুল হক

Easan

হাসান আজিজুল হক (জন্ম ১৯৩৯) আমাদের কথাসাহিত্যের শক্তিমান লেখকদের একজন। দীর্ঘ পাঁচ দশক ধরে তিনি লিখে চলেছেন। লেখালেখির জন্য পেয়েছেন বাংলাদেশের প্রায় সকল উল্লেখযোগ্য পুরষ্কার এবং রাষ্ট্রীয় একুশে পদক। আসাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পেয়েছেন সম্মানসূচক ডি.লিট (২০১২)। তাঁর লেখা গল্প অনূদিত হয়েছে ইংরেজি, হিন্দি, উর্দু, রুশ ও চেক ভাষায়। সমুদ্রের স্বপ্ন, শীতের অরণ্য, আত্মজা ও একটি করবী গাছ, জীবন ঘষে আগুন, পাতালে হাসপাতালে, রাঢ় বঙ্গের গল্প, মা মেয়ের সংসার তাঁর উল্লেখযোগ্য গল্পগ্রন্থ। (সম্পূর্ণ…)