বিভাগ: কবিতা

পাখি বলে

পাতার মর্মরও কথা শোনে

জল থেকে জলে ঘটে তারই বিস্তার

আশাহীন তরীটিকে নিয়ে এই যাত্রা

জানি না তো গন্তব্য কোথায়

ভাঙা ঘরবাড়ি, হলুদ সোনালি শিষ

তারই বিস্তার চারিদিকে

ঘর ভেঙে উড়ে যাওয়া পাখি

কেবলই ক্লান্তিহীন অবিশ্রাম

ভ্রমণের কথা বলে…….

আমাকে পৌঁছে যেতে হবে

আমাকে পৌঁছে যেতে হবে, আমার ভিতরে

আমার ভেতরের ভেতরের ভিতরে

কিন্তু কে দেবে আমাকে তা, কীভাবে,

কোন জাদুমন্ত্রবলে? (সম্পূর্ণ…)

শামীম রেজা

কত কত গুজন তোমায় নিয়ে, কত শত স্ক্যান্ডাল

তোমার চাঁদ দুটো নিয়ে অনেক গল্প ছড়ালো

পাড়ায় পাড়ায়, মাঠে চাঁদ কেমন কেমন

জোছনা ছড়ালো একা একা; সবুজ মায়া…

তোমায় নিয়ে পুরাকালে মূর্তি বানানো ছিল (সম্পূর্ণ…)

বেহালা

ভ্রম থেকে পৌঁছে যাই অলীক বিভ্রমে- আর স্নানঘর থেকে ছুটে যাই ঘুমঘোর স্যানাটোরিয়ামে- কিছুটা দূরের রেখা পার হয়ে এসে যাই শ্বেতধোঁয়া সরোবরে- জলমগ্ন জ্যোতির মর্মরে- বেজে ওঠে ঠান্ডা হাওয়ায় এক ম্যান্ডোলিন; গ্রিক দেবতার হাড়ের ভেতর বেজে ওঠে দন্তহীন আফ্রোদিতি- চুলখোলা ডাকিনীর ডাক। (সম্পূর্ণ…)

প্রেমিক

ধাক্কা আর অনুপ্রেরণা সমান তালে অনিবার্যভাবে কড়া নাড়ে

জীবনের প্রাসঙ্গিক ভাবনায়। সুসংহত শাসিত ইতিহাসে

অব্যাহত আখ্যান জুয়াড়ি জীবনের অতীত অধ্যায় অভিষিক্ত করে সমাধানে।

অজ্ঞাত ভীতির কানে জড়ো হয় জ্ঞাত নাট্য সংলাপ।

পক্ষপাতিত্বের অসারতা যোগ হয় প্রেমের পাঠ্যসূচিতে। (সম্পূর্ণ…)