শামীম রেজা

Facebook Twitter Email

কত কত গুজন তোমায় নিয়ে, কত শত স্ক্যান্ডাল

তোমার চাঁদ দুটো নিয়ে অনেক গল্প ছড়ালো

পাড়ায় পাড়ায়, মাঠে চাঁদ কেমন কেমন

জোছনা ছড়ালো একা একা; সবুজ মায়া…

তোমায় নিয়ে পুরাকালে মূর্তি বানানো ছিল

সে সব মূর্তি দেখে কেউ কেউ বলল,

এ-তো রাধার, গোপন শৃঙ্গারমূর্তি

কেউ বলল অষ্টাদশী নয়, এ তো কিশোরীলো

পহেলা শ্রাবণী, কেউ বলল মা-কুমারেশ্বরী

এসো তোমায় প্রণাম করি, কেউ বলল

ওকে তো চন্দ্রিমা উদ্যানের মূল ফটকে

দাঁড়িয়ে থাকতে দেখেছি…..

আরে ওতো আমার সাধিকা

কেউ কেউ বলল, ওতো পদ্মাপাড়ের মেয়ে

জেলেদের ঘরেই বেড়েছে, দেখছ না? নাকছাবি

প্রবাস থেকে কে একজন চিনে ফেলেছে তোমাকে!

সে নাকি দেখেছে লেক অন্টারিয়র পাড়ে একা,

….বিষণ্ণ একা।

একজন এসে দাবী করে বসল, সে তোমার

আপন মানুষ; তোমাকে নিয়ে অনেক কথাই হলো

অনেক ভালোবাসাবাসি হলো; পাহেলা গাঁও থেকে

অচেনা এক পাখি এসে জানিয়ে গেল

তুমি কে আমার।

 

তুমি একটুতে ভেঙে পড়ো, একটুতে জল

কলঙ্ক গাছের দিকে তাকাতে ভয়

চেয়ে দেখো কলঙ্ক গাছেতে ওই

ঝুলে আছে, বেহেস্তি-ফল।

তোমাকে নিয়ে অনেক কথাই তো হবে

অনেক কথাই হয়, অনেক অনেক কথা….

তাকিয়ে দেখো তোমার এক বুকে মধুমতি

অন্য বুকে জ্বলে সন্ধ্যাতারা।

Facebook Twitter Email